The Business Post
শনিবার, অক্টোবর ২৩, ২০২১

প্রচ্ছদ বিজ্ঞান-প্রযুক্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক
২২ অক্টোবর ২০২১ ১৯:৪৬:০৩

আধুনিক নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনায় গ্রামীণফোনের সঙ্গে উইপ্র’র চুক্তি

আধুনিক নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনায় গ্রামীণফোনের সঙ্গে উইপ্র’র চুক্তি

গ্রাহকদের জন্য আধুনিক নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করতে বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান উইপ্র এর সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে গ্রামীণফোন।

এখন থেকে গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনা এবং ভবিষৎ প্রয়োজনীয় নেটওয়ার্ক আধুনিকায়ন ও উন্নয়ন সংক্রান্ত কাজে পার্টনার হিসাবে দায়িত্ব পালন করবে উইপ্র।

নতুন এই চুক্তিটি দুটি প্রতিষ্ঠানের কাজের পরিধি আরও বৃদ্ধি করবে। গ্রামীণফোনকে টেকনোলজি পার্টনার হিসাবে উইপ্র এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, অবকাঠামোগত উন্নয়ন এবং আইটি সিকিউরিটি ব্যবস্থাপনায় সহায়তা করে আসছে। প্রযুক্তিখাতে বিশ্বব্যাপী নেতৃত্ব ও অভিজ্ঞতা নিয়ে উইপ্র বাংলাদেশে ইতিমধ্যে একটি সুপ্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠান।

উন্নত মোবাইল সেবা এবং উচ্চ মান সম্পন্ন নেটওয়ার্ক অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করার চাহিদা বাংলাদেশ উত্তোরত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। উইপ্র'র সুপ্রতিষ্ঠিত দক্ষতা এবং অপারেটিং মডেল গ্রামীণফোনের সেবার মান উন্নয়নের পাশপাশি গ্রাহকদের ডিজিটাল চাহিদা মেটাতে ভবিষৎ আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর নেটওয়ার্ক স্থাপনে সহায়ক হবে। ফাইভ জি, টাচ ফ্রি অপারেশন, এবং ফল্ট ম্যানেজমেন্টর মতো আধুনিক সব প্রযুক্তি নিয়ে যেীথভাবে কাজ করবে গ্রামীণফোন ও উইপ্র। উইপ্রর মতো গ্লোবাল টেক প্লেয়ারের সাথে পার্টনারশীপের ফলে লোকাল ট্যালেন্টদের কাজ, চাকুরী ও দক্ষতা বৃদ্ধিরও সুযোগ তৈরি হবে।

উইপ্র'র সাথে চুক্তি বিষয়ে গ্রামীণফোনের সিটিও (চিফ টেকনোলজি অফিসার) রাদে কোভাসেভিচ বলেন, গত ২৪ বছর ধরে বাংলাদেশকে সামনে এগিয়ে নেয়ার প্রচেষ্টায় একটি লিডিং প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ও কানেক্টটিভিটি পার্টনার হিসাবে আমাদের ভূমিকা এখন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কানেক্টিভিটির ক্রমবর্ধমান চাহিদা , গ্রাহকদের অভিজ্ঞার উন্নয়ন এবং ভবিষৎ এর আধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে আসতে আমরা এ বছর অনুমোদিত সীমার সর্বোচ্চ স্পেকট্রাম কিনেছি এবং একই সাথে দেশব্যাপী ফোরজি নেটওয়ার্ক সম্প্রসারন করেছি। একই ধারাবাহিকতায় নেটওয়ার্ক স্থাপনে টাওয়ারকো প্রতিষ্ঠান এবং ফাইবার নেটওয়ার্ক এর জন্য বাংলাদেশ টেলিকমউনিক্যাশন কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) সাথে পার্টনারশীপ করেছে গ্রামীণফোন।

মাইলফলক এই পার্টনারশীপ নিয়ে রাদে আরো বলেন, আমরা নেটওয়ার্ক ব্যবস্থাপনায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি পদক্ষেপ নিয়েছি যা ভবিষৎ আমাদের গ্রাহকদের চাহিদা পূরনে খুব কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। একই সাথে এই পার্টনারশীপটি গ্লোবাল প্রতিষ্ঠানের দক্ষতা কাজে লাগিয়ে ভবিষৎ প্রযুক্তি দক্ষতার উন্নয়ন সম্ভব হবে এবং বাংলাদেশী টেলেন্টদের ভালো কাজের সুযোগ তৈরি করবে। আমি বাংলাদেশ সরকার, নিয়ন্ত্রক সংস্থার দিক নির্দেশনা ও সহায়তার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

উইপ্র লি এর সাইথ এশিয়া ম্যানেজিং ডাইরেক্টর বেভি কাপুর বলেন, বিশ্বব্যাপী উইপ্রর শক্তিশালী দক্ষতা ব্যবহার করে উন্নত ও আধুনিক সকল উদ্ভাবন স্থানীয়ভাবে কাজে লাগানো হবে আমাদের প্রাথমিক কাজ। আইটি ও কোর টেলিকম নেটওয়ার্কে কনভারজেন্স এর চাহিদার উত্তরোত্তর বৃদ্ধি, সফটওয়্যার নির্ভর নেটওয়ার্ক, ক্লাউড ফার্ষ্ট আর্কিটেকচার, এবং ফাইভজি এর জন্য গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্কের উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে আইটি ও ইনফ্রাস্টার্কচার পার্টনার হতে পেরে আমরা সত্যিই আনন্দিত।

উল্লেখ্য, উইপ্র ইতিমধ্যে বাংলাদেশ তাদের চার বছর সফলভাবে পূর্ণ করেছে এবং এশিয়াপ্যাসিফিক-মিডল ইস্ট এবং আফ্রিকা অঞ্চলে এটি তাদের অন্যতম স্ট্রাটেজিক মার্কটে।